ঢাকা, বুধবার, ১০ই ফাল্গুন, ১৪২৩ বঙ্গাব্দ, ২২শে ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ ইং, ২৪শে জমাদিউল-আউয়াল, ১৪৩৮ হিজরী
bartabazar viber

ভারতের পতিতাপল্লী থেকে যেভাবে ফিরে এলো কিশোরী
বার্তা বাজার ডেস্ক | প্রকাশিত: পূর্বাহ্ণ ১০:৫৪ , নভেম্বর ১, ২০১৬

খুলনা মহানগরীর টুটপাড়া এলাকার কিশোরীকে ভারতে পাচারের প্রায় ৬ মাস পর উদ্ধার করেছে অর্গানাইজ ক্রাইম (হোমিসাইডাল স্কোয়াড) সিআইডি। ওই কিশোরীকে খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের ওয়ান স্টপ ক্রাইসিস সেন্টার (ওসিসি) তে ভর্তি রাখা হয়েছে। ঢাকায় গার্মেন্টসে চাকরি দেয়ার নামে তাকে পাচার করা হয়েছিল।

এ মামলার তদন্ত ও ভিকটিম উদ্ধারকারী কর্মকর্তা উপ-পুলিশ পরিদর্শক এসএম হাবিবুল্লাহ এ বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। কিশোরী উদ্ধারের বিষয়ে তিনি আরো জানান, ভারতে নিয়ে পতিতা পল্লীতে তাকে পাচারকারীরা বিক্রি করেছিল।

সেই পল্লীর একজন সর্দারণীর সঙ্গে ফোনের মাধ্যমে যোগাযোগ স্থাপন ও বিভিন্ন কৌশল অবলম্বনের মাধ্যমে তাকে উদ্ধার করা হয়। সাতক্ষীরা জেলার ঝাউডাঙ্গা বাংলাদেশ-ভারতের বর্ডার থেকে তাকে উদ্ধার করে আদালতের নির্দেশে খুমেক হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।-মানবজমিন।

কিশোরী দোলার শরীরের বিভিন্ন জায়গায় নির্যাতনের আঘাত রয়েছে বলেও জানান তিনি। মামলার সংক্ষিপ্ত বিবরণী থেকে জানা গেছে, চলতি বছরের ১০ই এপ্রিল সকালে নগরীর নগরীর টুটপাড়া দিলখোলা রোডের বাসিন্দা কামাল খানের কিশোরী মেয়ে (১৬)কে ঢাকায় গার্মেন্টসে ভালো চাকরি দেয়ার নাম করে সালমা ওরফে লিয়া (২৭) ও মর্জিনা (২৭) নামের এ দু’জন নিয়ে যায়।

পরবর্তীতে তাকে বেনাপোল বর্ডার দিয়ে ভারতের হায়দ্রাবাদের একটি পতিতাপল্লীতে নিয়ে দালালের মাধ্যমে বিক্রি করে দেয়। গত ৩০শে আগস্ট ভারত থেকে কিশোরী তার পরিবারের কাছে মোবাইল ফোনে বিষয়টি অবগত করেন। এ ঘটনায় গত ৮ই সেপ্টেম্বর কিশোরীর মা নার্গিস বাদী হয়ে খুলনা থানায় মানবপাচার প্রতিরোধ আইনে সালমা ওরফে লিয়া এবং মর্জিনার বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করেন।

বার্তা বাজার.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।