ঢাকা, মঙ্গলবার, ১৬ই ফাল্গুন, ১৪২৩ বঙ্গাব্দ, ২৮শে ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ ইং, ৩০শে জমাদিউল-আউয়াল, ১৪৩৮ হিজরী
bartabazar viber

লক্ষ্যমাত্রার চেয়ে কমেছে রফতানি আয়
বার্তা বাজার ডেস্ক | প্রকাশিত: অপরাহ্ণ ৭:৩৫ , নভেম্বর ৬, ২০১৬

চলতি অর্থবছরের (২০১৬-১৭) প্রথম চার মাসে (জুলাই-অক্টোবর) অর্জিত হয়নি রফতানি আয়ের লক্ষ্যমাত্রা। উল্লেখিত সময়ে লক্ষ্যমাত্রার চেয়ে রফতানি আয় কমেছে ৬ দশমিক ৮৪ শতাংশ। একইসঙ্গে রফতানির আয়ের সবচেয়ে বড় খাত তৈরি পোশাকেও লক্ষ্যমাত্রা অর্জনে ব্যর্থ হয়েছে বাংলাদেশ। রফতানি উন্নয়ন ব্যুরোর (ইপিবি) সর্বশেষ হালনাগাদ প্রতিবেদন থেকে এসব তথ্য জানা গেছে।

ইপিবির তথ্য বিশ্লেষণে দেখা গেছে, আলোচ্য সময়ে রফতানি আয় হয়েছে ১ হাজার ১৩ কোটি ৫ লাখ ডলার। যা লক্ষ্যমাত্রার চেয়ে ১৪৪ কোটি ৯০ লাখ বা ৬ দশমিক ৮৪ শতাংশ কম। চলতি অর্থবছরের প্রথম চার মাসে লক্ষ্যমাত্রা ছিল ১ হাজার ১৫৮ কোটি ৪০ লাখ ডলার। তবে লক্ষমাত্রা অর্জন না হলেও গত বছরের তুলনায় রফতানি আয়ে প্রবৃদ্ধি হয়েছে ৬ দশমিক ৫৩ শতাংশ।

সংশ্লিষ্টরা বলছেন, রফতানি আয়ের ৮০ শতাংশের বেশি আসে তৈরি পোশাক খাতের উভেন এবং নিটওয়্যার রফতানি থেকে। এ দুই খাতের মধ্যে নিটওয়্যারের রফতানিতে আয় কিছুটা বাড়লেও উভেনে লক্ষ্যমাত্রার চেয়ে কমেছে ১৫ দশমিক ৫৪ শতাংশ। ফলে প্রভাব পড়েছে সামগ্রিক রফতানি আয়ে।

আলোচ্য সময়ে লক্ষ্যমাত্রার তুলনায় তৈরি পোশাক খাতের নিটওয়্যারে রফতানি আয় ২ দশমিক ২৩ শতাংশ বেড়েছে। এ সময়ে নিটওয়্যারে রফতানি আয় হয়েছে ৪৫৩ কোটি ৫১ লাখ ডলার। যেখানে লক্ষ্যমাত্রা ছিল ৪৪৩ কোটি ৬০ লাখ ডলার। তবে একই সময়ে তৈরি পোশাকের আরেক খাত উভেনে রফতানি আয় হয়েছে ৪২৮ কোটি ৬৩ লাখ ডলার। যা লক্ষ্যমাত্রার চেয়ে ১৫ দশমিক ৫৪ শতাংশ কম।

এছাড়া একক মাস হিসেবে অর্থবছরের চতুর্থ মাসে (অক্টোবর) ২৬৩ কোটি ৮০ লাখ মার্কিন ডলার লক্ষ্যমাত্রার বিপরীতে আয় হয়েছে ২৭১ কোটি ২৮ লাখ ডলার। অর্থাৎ অক্টোবরে লক্ষ্যমাত্রার চেয়ে ২ দশমিক ৮৪ শতাংশ বেশি। একইসঙ্গে গত বছরের অক্টোবরের তুলনায় ১৪ দশমিক ৩৯ শতাংশ বেশি।

গত অর্থবছরে (২০১৫-১৬) ৯ দশমিক ৭৭ শতাংশ বেড়ে রফতানি হয়েছিল ৩ হাজার ৪২৫ কোটি ৭১ লাখ মার্কিন ডলার। এর উপর ৮ দশমিক শূন্য ৬ শতাংশ প্রবৃদ্ধি ধরে চলতি ২০১৬-১৭ অর্থবছরে ৩ হাজার ৭০০ কোটি মার্কিন ডলার রফতানির লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ করেছে সরকার।

বার্তা বাজার.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।